Top banner ads

চেকে লেনদেন করলে যা আপনাকে জানতেই হবে। How to write Bank Cheque in Bangla|



( আমাদের ইউটিউব চ্যানেল ভিজিট করার আমন্ত্রন, ক্লিক করুন)


সরাসরি  টিউটোরিয়াল দেখতে উপরে ক্লিক করুন
উপরের ভিডিও ও নিচের তথ্য দেখে আপনি শিখতে পারবেনঃ
  • কিভাবে চেক লিখতে হয়?
  • কিভাবে চেকে লেনদেন নিরাপদে করতে হয়?
  • চেক কত প্রকার, কিভাবে বিভিন্ন প্রকার চেক বিভিন্ন ভাবে ব্যবহার করতে হয়? 
  • কিভাবে চেকের বই লিখবেন না ।
  • সতর্কতামূলক নির্দেশনা, কিভাবে আপনি প্রতারিত হতে পারেন । 
  •  চেকের দারুন ব্যবহারসমূহ ইত্যাদি।


আপনি যদি ব্যাংকের চেকে লেনদেন করেন 
আপনার নিরাপত্তার স্বার্থে আপনাকে এই টিপস গুলো জানতে হবে।

এছাড়াও দেখাবো ব্যাংকের চেকের আকর্ষণীয় দারুণ কিছু ব্যবহার যা অনেকেই জানেনা।

বর্তমান সময়ে অধিকাংশ লোকই ব্যাংকের সাথে লেনদেন জড়িত । শিক্ষিত অশিক্ষিত সব ধরনের
Bank Cheque tips 2.abcbanglabd
মানুষই ব্যাংকে লেনদেন করে থাকেন।
তো সামান্য কিছু নিয়ম মনে রাখলে স্যার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নিরাপদ থাকবে। যদিও ব্যাংকের পলিসি অনুযায়ী সব ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট  নিরাপদ থাকে।
কিন্তু কিছু কিছু ভুলের কারণে যাতে কেউ আপনার সাথে প্রতারণামূলক কোন কিছু না করতে পারে তাছাড়া প্রকৃতপক্ষে এভাবেই একটি ব্যাংকের চেক পূরণ করা  লেখা উচিত।
তো চলুন দেখে নেয়া যাক ব্যাংকের চেক লেখার সময় কি কি নিরাপদ দিকগুলোই রাখবেন।
----------------------------------------------------------------------------------
Bank Cheque tips 2.abcbanglabd
-
প্রথমে তারিখের করে তারিখ লিখুন
-পে - টাকার ঘরে টাকা লিখুন।
-  পাশের ঘরে টাকার পরিমাণ কি লিখুন লিখুন
- নিচে স্বাক্ষর করুন ।যখন ব্যাংক ফরম টি পূরণ করেছেন যে স্বাক্ষরটি দিয়েছেন সেই স্বাক্ষরটি
করুন
- পাশের বাম দিকের অংশটুকু অনুরূপভাবে পূরণ করে রাখুন।
সতর্কতাঃ
উপরের লেখা অনুযায়ী আপনি যদি লিখেন তাহলে পাশের চিত্রে দেখুন লেখা টি এমন হবে।
Bank Cheque tips 2.abcbanglabd
অর্থাৎ প্রতিটি অক্ষরের মাঝখানে ফাঁকা কিছু জায়গা থাকবে। যা যাদের আপনি প্রতারিত হতে পারেন অতিরিক্ত সংখ্যা যুক্ত করে।
--------------------------------------------------------------------------------
তাহলে কিভাবে লিখতে হবে ঃ
পাশের চিত্রে দেখানো অনুযায়ী লিখবেন অর্থাৎ মাঝখানে কোনো ফাঁকা স্থান রাখবেন না। এর মানে এই নয় যে সংখ্যাগুলো একসাথে করে লিখবেন। অর্থাৎ বলছি মাঝখানের স্থানগুলোকে অর্থাৎ বলছি মাঝখানের স্থানগুলোকে কলম দিয়ে টান দিয়ে কেটে দিবেন।
তাহলে এভাবে নতুন কোন শব্দ ও সংখ্যা কেউ আর যোগ করতে পারবে না।
অংকে লেখার অংশও ছবির মত করে লিখবেন মাঝখানে কোনো ফাঁকা স্থান রাখবেন না ।
Bank Cheque tips 2.abcbanglabd
আর শুরুতে ও শেষে সমান চিহ্নর মতো করে দিয়ে অংক এখানেই অংক বা সংখ্যা লেখা বন্ধ করে দিন।
 -------------------------------------------------------------------------------
এবার চলুন চাকরি কিছু দারুণ ব্যবহার এবং চেক কত প্রকারঃ
চেক মূলত তিন প্রকারঃ
-নগদ ক্যাশ চেক
- দাগ কাটা বা একাউন্ট পেয়ী চেক
-অগ্রিম তারিখের চেক

নগদ বাকি চেকঃ
পাশের চিত্রে লেখার মত লিখলে এটি নগদ ক্যাশ চেক অর্থাৎ এই থেকে টাকা যে কেউ ব্যাংকে গিয়ে
Bank Cheque tips 2.abcbanglabd
উত্তোলন করতে পারবে। অথবা কারো নামে দিয়ে থাকলে সে সরাসরি টাকা উত্তোলন করতে পারবে।

দাগ কাটা বা একাউন্ট পেয়ী চেক ঃ
পাশের চিত্রে একটি দাগ কাটা চেকের নমুনা দেওয়া হলো।
কিভাবে চেক এর বাম পাশে উপরের কোনায় যদি আপনি চেকে দাগ কেটে দেন অথবা একাউন্ট পেয়ী সীল দিয়ে দেন, তাহলে সেটি একাউন্ট পে অথবা দাগ কাটা চেক হয়ে যাবে।
 যেই নামের একটি লেখা হয়েছে শুধু সেই নামেই একটি একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হবে। পরবর্তীতে সেই ট্রান্সফার হওয়া একাউন্ট থেকে টাকা তুলতে পারবে। অত সরাসরি অথবা নগদ টাকা কিছুতেই উত্তোলন করতে পারবেন না। যেই ব্যাংকের চেক হোক আপনার বাংলাদেশের যেকোনো ব্যাংকের একটি অ্যাকাউন্ট থাকলেই হবে। আপনার একাউন্টির যেই ব্যাংকে আছে আপনি সেই ব্যাংকে চেক জমা করবেন।
অনেক একটি ভুল করে,
Bank Cheque tips 2.abcbanglabd
 ধরুন চেক দেয়া হলো ব্রাক ব্যাংকের কিন্তু উনি বলে আমার তো ব্র্যাক ব্যাংকে কোন একাউন্ট নেই। হত তাহলে আপনার ব্র্যাক ব্যাংক একাউন্ট থাকা দরকার নেই।
 উত্তর হল আপনার যে ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট আছে সে ব্যাংকে আপনি এই অ্যাকাউন্ট পেয়ী চেকটি জমা করুন। এ তারা বোঝা গেল আপনার চেকের টাকাটি আপনার নিজ একাউন্টে ট্রান্সফার হয়ে যাবে।
এক থেকে তিন দিনের মধ্যে টাকা ট্রান্সফার হয়ে যাবে।
    
 


 অগ্রিম তারিখের চেক ঃ
হঠাৎ আপনি আজকে যে কিছু করবেন আর তারিখ দিবেন অগ্রিম  কোন একটা তারিখে যে তারিখের পূর্বে একটি ভাঙা টাকা তুলতে পারবেন না।
উদাহরণ দেওয়া যাক ধরুন আজকে মাসের ১০ তারিখ,২০১৯।
Bank Cheque tips 2.abcbanglabd
খারাপ নিচে কি লিখলেন ফেব্রুয়ারি মাসের ১৫ তারিখ  আজ থেকে এক মাস ৫ দিন পরে সেই টাকাটি তুলতে পারবে বা ব্যাংকে জমা করতে পারবে।







Bank Cheque tips 2.abcbanglabd



















কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.